রাতে কাজ করতে দারুণ মজা পান বিদ্যা

on-the-night-of-her-husbands-great-fun-to-work-with-vidya

বিনোদন ডেস্ক: বলিউডের নামকরা অভিনেত্রী বিদ্যা বালনের মুখে লাগাম নেই। যখন যা মনে হয়, তাই বলে ফেলেন। সরল, সহজ মেয়ে এই বিদ্যা। যা বলেন সোজাসাপটা। তাই তো নিজের দাম্পত্য জীবনের গোপন ব্যাপারস্যাপার সর্বসমক্ষে চিৎকার করে বলতে পারেন।

২০১২ সালে ১৪ ডিসেম্বর সিদ্ধার্থ রায় কাপুরের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে বিদ্যার। বিয়ের পরেও চুটিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। হালে তার ছবি ‘কাহানি ২’ মুক্তি পেয়েছে। এখন বিদ্যা একবার স্টার গিল্ডের অ্যাওয়ার্ড প্রোগ্রামে গিয়ে সবাইকে চমকে দিয়েছিলেন।

সেই অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ছিলেন সালমান খান। তিনিই মঞ্চে ডেকে নেন বিদ্যাকে। দর্শকদের তালিকায় উপস্থিত ছিলেন অনুশকা শর্মা, প্রিয়ঙ্কা চোপড়াসহ অনেকে। সামনের সারিতে বসে বিদ্যার স্বামী সিদ্ধার্থ রায় কাপুর। সালমান বিদ্যাকে অস্বস্তিতে ফেলে ফেলে প্রশ্ন ছুড়ে দেন, ‘বিদ্যা, বিয়ের পরে কেমন চলছে সব কিছু?’ অপ্রস্তুত হয়ে পড়ার মেয়েই নন তিনি। হেসে ফেলেন বিদ্যা। হাসতে হাসতেই সালমানের প্রশ্নের জবাবে বিদ্যা বলতে থাকেন, ‘বিয়ের পরে আমার যা পছন্দ, যেটা ভালো লাগে, তা আমি রাতেই করি…।’

কথা শেষ করেন না বিদ্যা। মাইক হাতে বিদ্যা যা বললেন, তাতে সবাই অবাক। সালমানেরও চোখ কপালে। দর্শক আসনে বসে থাকা অনুশকা অবাক হয়ে গেছেন, মুখে হাত দিয়ে ফেলেছেন। প্রিয়ঙ্কার মাথা লজ্জায় হেট। স্বামী সিদ্ধার্থ চোয়াল শক্ত করে বসে রয়েছেন। আশঙ্কা করছেন, এই বুঝি ব্যাফাঁস কিছু বলে ফেলেন বিদ্যা।

একটু নিঃশ্বাস নিয়ে, নিজেকে স্থির করে বিদ্যা বলতে শুরু করেন, ‘বিয়ের পরে আমার যা পছন্দ, যেটা ভালো লাগে, তা রাতেই করি। কারণ আমার স্বামী সিদ্ধার্থ রায় কাপুর খুব সকালে অফিসে চলে যান। অফিস থেকে রাতে বাড়ি ফেরেন। আমরা দুইজন রাতে একসঙ্গে ডিনার করি।’ বিদ্যার মুখে এই কথা শুনে সবাই তখন হাসিতে ফেটে পড়েছেন। সালমানও শুরু করে দিয়েছেন রসিকতা। বলছেন, ‘একসঙ্গে খাবার খাওয়ার জন্য কেউ বিয়ে করে, এমনটা তো কখনো শুনিনি।’ সেই সঙ্গে দর্শকরাও হাসিতে ফেটে পড়েছেন।