পুঁজিবাজারে সূচকের সঙ্গে বেড়েছে লেনদেন

saremarketবাংলা দর্পণ : পুঁজিবাজারে গতকাল কিছুটা নেতিবাচক ধারা থাকলেও সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জে সূচকের সঙ্গে বেড়েছে টাকার লেনদেনের পরিমাণ। সেই সঙ্গে বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দরও বেড়েছে।

টানা আট কার্যদিবস দরপতনের পর ২০ ডিসেম্বর পুঁজিবাজারকে স্থিতিশীল ও গতিশীল করার লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বিনিয়োগ সংক্রান্ত নীতিমালা শিথিল করে। এর ফলে সোমবার ও মঙ্গলবার ঊর্ধ্বমুখীতে ফিরে পুঁজিবাজার। তবে বুধবার কিছুটা নেতিবাচক ধারা থাকলেও আজ শেষ কর্যদিবস আবারও উত্থান ধারায় ফিরেছে শেয়ারাবাজার।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার দিনশেষে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ১৯ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৬০৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এছাড়া শরিয়া সূচক ডিএসইএস ৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ১০৬ পয়েন্টে এবং ডিএস৩০ সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৭৪৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

ডিএসইতে টাকায় লেনদেন হয়েছে ৪২৯ কোটি ৩৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। যা আগের কার্যদিবসের চেয়ে ৩৫ কোটি টাকা বেশি। বুধবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৩৯৪ কোটি টাকা।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে মোট ৩১৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৮৪টির, কমেছে ৮৯টির আর অপরিবর্তিত আছে ৪৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দর।

অপরবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স ৩৪ পয়েন্ট বেড়ে ৮ হাজার ৫৪৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এছাড়া সিএসই৫০ সূচক ৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৫ পয়েন্টে, সিএসই৩০ সূচক ৪৪ পয়েন্ট বেড়ে ১২ হাজার ৪২২ পয়েন্টে, সিএএসপিআই সূচক ৬০ পয়েন্ট বেড়ে ১৪ হাজার ৪৩ পয়েন্টে এবং সিএসআই শরিয়াহ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে ৯৬৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

সিএসইতে মোট ২৪১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১২৭টির, কমেছে ৭২টির আর অপরিবর্তিত আছে ৪২টি কোম্পানির শেয়ার দর। টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৫৫ কোটি ৬১ লাখ টাকা।